সব বেচে টাকা পাঠাও, আমারে বাঁচাও: লিবিয়া থেকে মাকে ফোন যুবকের!

০৯:১১:৩২ শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০

সর্বশেষ সংবাদ :

     • বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধর্ষণ: বাবর আজমকে যে নির্দেশ দিলেন আদালত     • বাড়িতে আসতে দেরি করায় স্বামীর পুরুষাঙ্গ বটি দিয়ে কাটলেন স্ত্রী!     • হায়দরাবাদের নির্বাচনে ৪ আসন থেকে এক লাফে ৪৮ আসনে বিজেপি     • ভারতের করোনা ভ্যাকসিন নিয়ে করোনা আক্রান্ত হলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী!     • ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে যেসব শর্ত সৌদির     • এভাবে যদি চলতে থাকে তাহলে দেশের অবস্থা আরও ভয়াবহ হবে : এমপি গোপাল     • ফোর্বসের সেরা কোম্পানির তালিকায় তিন বাংলাদেশি কোম্পানি     • 'তৈরি থাকুন, সময় এসে গেছে', সৌরভ গাঙ্গুলিকে বার্তা নরেন্দ্র মোদির     • ৮ বছরের ছেলের সামনেই রাজশাহীর কারাফটকে মা-বাবার বিয়ে     • দেশের শীর্ষ আলেমদের ৫ দফা প্রস্তাবে যা রয়েছে

শনিবার, ৩০ মে, ২০২০, ০৮:৪৭:২১

সব বেচে টাকা পাঠাও, আমারে বাঁচাও: লিবিয়া থেকে মাকে ফোন যুবকের!

সব বেচে টাকা পাঠাও, আমারে বাঁচাও: লিবিয়া থেকে মাকে ফোন যুবকের!

বেলাল রিজভী, মাদারীপুর: ‘যা আছে সব বিক্রি করে টাকা পাঠাও। আমি বাঁচতে চাই। আমারে বাঁচাও। ওরা প্রতিদিন মা'রধ'র করে। কারেন্টে শ'ক দেয়। মা আমি বাঁ'চতে চাই।’ বা'চাঁর জন্য মোবাইল ফোনে এমনই আকুতি করেছিল মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার ইশিবপুর ইউনিয়নের ২৩ বছরের যুবক সজিব বেপারী। কিন্তু বাঁচতে পারেননি। সবকিছু বিক্রি করে দালালের কাছে টাকা দেয়ার পরও সন্ত্রা'সীদের গু'লিতে প্রাণ হা'রায় সজিব। শুধু সজিব নয় এমন ১১ জন নিহ'ত হয়েছে মাদারীপুরের বিভিন্ন এলাকায়। আহ'ত হয়েছে আরও ৪জন।

সরেজমিন অনুসন্ধানে জানা গেছে, স্বপ্ন পূরণের আশায় স্থানীয় দালালদের আশ্বাসে বিদেশে পাড়ি জমিয়েছিল মাদারীপুরের বেশ কিছু যুবক। কিন্তু সেই আশায় গুঁ'ড়েবালি। তাদেরকে লিবিয়া নেওয়ার পর দালালরা জি'ম্মি করে দ'ফায় দ'ফায় টাকা দাবি করেন। টাকা দিতে না পারায় দ'ফায় দ'ফায় চলে নি'র্যা'তন। অনেকেই আবার দাবিকৃত টাকা দিয়েও রক্ষা পায়নি। স্থানীয় দালালদের কাছে টাকা দিলেও লিবিয়ায় অবস্থানরত মাফিদাদের কাছে টাকা না পৌঁছানোয় তাদের এক পর্যায়ে গু'লি করে হ'ত্যা করা হয়। 

মৃ'তদেহ দেশে ফিরিয়ে দেয়ার দাবি করেছেন নিহ'তদের পরিবার। আর দোষীদের শাস্তির দাবি করেছেন ভুক্তভোগি পরিবার। প্রশাসনও দালালদের শাস্তির আওতায় আনার চেষ্টা করছেন বলে দাবি করছেন।
জানা গেছে, দুই দিন আগে নির্ম'ম নি'র্যা'তনের করুণ আকুতি জানিয়েছিলেন সদর উপজেলার কুনিয়ার মনির আকন। তার কথা শুনে পরিবারও দালালদের দাবি করা ৭ লাখ টাকা সংগ্রহের চেষ্টা করছিল। কিন্তু এখন আর খোঁ'জ মিলছে না মনির আকনের।

বিষয়টি জানাজানি হলে পরিবারে নেমে আসে শো'কের ছায়া। কা'ন্নায় ভে'ঙ্গে পড়েন স্বজনরা। মনিরের স্ত্রী মেরিনা বেগমের দাবি, স্থানীয় দালাল নূর হোসেনের মাধ্যমে পাঁচ মাস আগে ইতালি যাওয়ার কথা বলে সাড়ে চার লাখ টাকা নিয়েছিল। এখন মৃ'ত্যুর সংবাদ গা-ঢাকা দিয়েছে নুর হোসেন। আমরা এর বিচার চাই। 

এদিকে নিহ'ত সজিব বেপারী স্ত্রী নুরনাহার বেগম বার বার মুর্ছা যাচ্ছিলেন। কা'ন্নাজড়িত কণ্ঠে তিনি বলেন, ‘আমার সন্তানের বয়স ৫ মাস। ও বাবার মুখটাও দেখেনি। সুখের আশায় দালালের প্রলোভনে পারি জমিয়েছিল লিবিয়া। সেখানে দালালরা তাকে জিম্মি করে। প্রথম দ'ফায় রেজাউল দালাল সাড়ে ৪ লক্ষ টাকা নেয়। পরে জিম্মি করে আরো ৫ লক্ষ টাকা নেয়। এরপর মাফিয়ারা তাকে গু'লি করে হ'ত্যা করে। সব টাকা দিয়েছি ধা'র দেনা করে। এখন কেমন করে এই দেনা প'রিশোধ করবো।’

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বাংলাদেশিসহ অভিবাসীদের মিজদা শহরের একটি জায়গায় টাকার জন্য জি'ম্মি করে রাখে মানবপাচারকারী চক্র। এ নিয়ে এক পর্যায়ে ওই চক্রের সঙ্গে মা'রামা'রি হয় অভিবাসী শ্রমিকদের। এতে এক মানবপাচারকারী মা'রা যায়। তারই প্র'তিশোধ হিসেবে ২৮ মে বৃহস্পতিবার রাত ৯টারদিকে ২৬ বাংলাদেশিসহ ৩০ অভিবাসী শ্রমিককে গু'লি করে হ'ত্যা করে মানবপাচারকারী চক্রের এক সদস্যের সহযোগী ও স্বজনরা। 

নিহ'তরা হলেন সদর উপজেলার জাকির হোসেন, জুয়েল হোসেন, ফিরোজ ও শামীম, রাজৈর উপজেলার বিদ্যানন্দী গ্রামের জুয়েল হাওলাদার, একই গ্রামের মানিক হাওলাদার (২৮), টেকেরহাট এলাকার আসাদুল, মনির হোসেন ও আয়নাল মোল্লা, ইশিবপুর এলাকার সজীব ও শাহীন। আহ'তরা হলেন, সদরের ফিরোজ বেপারী, ইশিবপুরের সম্রাট খালাসী ও কদমবাড়ীর মো. আলী।

মাদারীপুর জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুল ইসলাম দোষীদের শাস্তির আশ্বাস দেন। তিনি মৃ'তদেহ দেশে ফিরিয়ে আনার জন্য মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান।-বিডি প্রতিদিন



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


স্বামী-সন্তান হারিয়েছি, ঈমান ত্যাগ করিনি : নওমুসলিম নারীর আত্মত্যাগের কথা

স্বামী-সন্তান-হারিয়েছি-ঈমান-ত্যাগ-করিনি-নওমুসলিম-নারীর-আত্মত্যাগের-কথা

পবিত্র কাবা দৃষ্টিগোচর হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে আমাদের অনেকেই কেঁদে ফেললেন

পবিত্র-কাবা-দৃষ্টিগোচর-হওয়ার-সঙ্গে-সঙ্গে-আমাদের-অনেকেই-কেঁদে-ফেললেন

পবিত্র কোরআনে বর্ণিত ত্বীন এখন চাষ হচ্ছে গাজীপুরের বারতোপা গ্রামে

পবিত্র-কোরআনে-বর্ণিত-ত্বীন-এখন-চাষ-হচ্ছে-গাজীপুরের-বারতোপা-গ্রামে ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


মহাকাশে মুলা চাষ করলেন নাসার বিজ্ঞানীরা

মহাকাশে-মুলা-চাষ-করলেন-নাসার-বিজ্ঞানীরা

জীবনের অধিকাংশ সময় পশুদের সঙ্গে জঙ্গলে কাটায় বাস্তবের 'মোগলি'!

জীবনের-অধিকাংশ-সময়-পশুদের-সঙ্গে-জঙ্গলে-কাটায়-বাস্তবের--মোগলি--

বাবার বিয়ের ছবি পোস্ট করে ছেলের শুভ কামনা; সোশ্যাল মিডিয়ায় শুভেচ্ছার বন্যা!

বাবার-বিয়ের-ছবি-পোস্ট-করে-ছেলের-শুভ-কামনা--সোশ্যাল-মিডিয়ায়-শুভেচ্ছার-বন্যা- এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


যুগান্তকারী আবিষ্কার! ২ ঘণ্টায় পৃথিবীর যে কোনও প্রান্তে পৌঁছাবে চীনা বিমান!

২৫ বছরের চেয়ে আমি দেখতে এখন অনেক ভালো : বন্যা মির্জা

পাইপলাইনের মাধ্যমে নিরবচ্ছিন্নভাবে সরাসরি জ্বালানি তেল পাবে বাংলাদেশ

ইরানের শীর্ষ পরমাণু বিজ্ঞানী হত্যা, মুখ খুললেন জো বাইডেন

বিচিত্র জগৎ


জানাজা শেষে মুচকি হেসে বাসায় ফিরতো বাপ্পি, রাত হলেই কবরের লাশ তুলে বাসায় নিতো!

জানাজা-শেষে-মুচকি-হেসে-বাসায়-ফিরতো-বাপ্পি-রাত-হলেই-কবরের-লাশ-তুলে-বাসায়-নিতো-

৭৫ বছর বয়সী প্রেমজি প্রতিদিন ২৫ কোটি টাকা দান করেন!

৭৫-বছর-বয়সী-প্রেমজি-প্রতিদিন-২৫-কোটি-টাকা-দান-করেন-

'৪৯ বছর বয়সেই সারা বিশ্বে ১৫০ শিশুর বাবা আমি!'

-৪৯-বছর-বয়সেই-সারা-বিশ্বে-১৫০-শিশুর-বাবা-আমি-- বিচিত্র জগতের সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ