মৌলভীবাজারে বাস্তবে দেখা মিলল নাগ-নাগিনীর

০২:৩৮:০৬ মঙ্গলবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯

সর্বশেষ সংবাদ :

     • ফাইনালে শেষ পর্যন্ত বাদ বিপ্লব, কপাল খুলল স্পিনার তাইজুলের!     • ভারতের দিকে ধেয়ে আসছে ভয়ঙ্কর ঘূর্ণিঝড় হিক্কা, বড় ধরনের ক্ষয়-ক্ষতির আশঙ্কা     • ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে খেলতে দেশ ছাড়ছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব      • জি কে শামীম সরকারি সব টেন্ডার পায় কী করে: গণপূর্তমন্ত্রী     • রাস্তার পাশে পাওয়া গেল কয়েক বস্তা কাটা টাকা!     • তাহাজ্জুদ নামাজ পড়ার নিয়ম     • রাজধানীর ড্যাফোডিল পলিটেকনিকে অগ্নিকাণ্ড     • দুই আ.লীগ নেতার বাসায় র‌্যাবের অভিযান, মিলল কোটি টাকা ও ৭২০ ভরি স্বর্ণ      • নাখাল পাড়া হোসেন আলী উচ্চ বিদ্যালয় অভিভাবক প্রতিনিধি নির্বাচন প্রার্থী রেজাউল করিম রেজা     • ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজে ম্যান অফ দ্যা টুর্নামেন্ট হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে যে ৬ ক্রিকেটার

বুধবার, ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ০১:৫৬:৩৩

মৌলভীবাজারে বাস্তবে দেখা মিলল নাগ-নাগিনীর

মৌলভীবাজারে বাস্তবে দেখা মিলল নাগ-নাগিনীর

মৌলভীবাজার: নাগ-নাগিনী বাংলাদেশের সবচেয়ে পরিচিত একটি সাপের নাম। যদিও বেশির ভাগ মানুষ এ সাপকে দেখেনি। তবে এ সাপকে নিয়ে বিভিন্ন গল্প, সাপুড়েদের চটকদার কথা এবং সিনেমা তৈরি হয়েছে।

সাপুড়েরা হাটেঘাটে এ সাপকে বিষাক্ত বলে পরিচয় করিয়ে দেন। গ্রামবাংলার বিভিন্ন অঞ্চলে সাপটিকে উড়ন্ত সাপ, উড়াল মহারাজ সাপ, সুন্দরী সাপ, কালসাপ ও কালনাগ বলে ডাকা হয়। সেই সঙ্গে নাগ-নাগিনীর বিষে মানুষের মৃত্যু হয় বলেও কথিত আছে। যদিও বাস্তবতা হচ্ছে এসব গল্প-কাহিনি এবং সিনেমা শুধুই কাল্পনিক। বাস্তবে সাপটি সম্পূর্ণ বিপরীত।

প্রাণিজগতের সবচেয়ে সুন্দর সাপগুলোর মধ্যে অন্যতম এ সাপ। যার ইংরেজি নাম হলো- (Ornate Flying Snake) ও বৈজ্ঞানিক নাম (Chrysopelea ornata)। ইংরেজিতে (Flying Snake) নাম হলেও সাপটি বাস্তবে উড়তে পারে না। খাদ্যগ্রহণ, বৈশিষ্ট্য এবং চরিত্রগত কারণে উঁচু গাছের ডাল থেকে নিচু গাছের ডালে লাফ দিয়ে চলাফেরা করে সাপটি। এ সাপটির বিষক্রিয়া নেই। এদের বিষে কারও মৃত্যু হয়েছে এমন কোনো তথ্য নেই। শুধু কাল্পনিকভাবেই সাপটিকে বিষধর এবং বিভিন্ন গল্প-কাহিনিতে ভুলভাবে উপস্থাপন করা হয়।

ফলে ভয়ঙ্কর ধারণা থেকেই সাধারণ মানুষ যখনই সাপকটিকে দেখে বিষাক্ত ভেবে মেরে পেলে। তাই এ প্রকৃতির নাগ-নাগিনী সাপ দ্রুত কমে যাচ্ছে।

যদিও এবার বাস্তবে মৌলভীবাজারের চা বাগানে এ সাপের দেখা মিলেছে। এর আগে লাউয়াছড়া, সাতছড়ি, রেমা-কালেঙ্গা বনে প্রচুর পরিমাণ এ সাপের দেখা মিলত।

এর আগে সিলেটের চা বাগানসহ মৌলভীবাজারের বিভিন্ন চা বাগানে সাপটির দেখা মিললেও বর্তমানে তেমন দেখা যায় না। তবে গভীর বনে এদের দেখা মেলে। এদের দৈর্ঘ্য ১০০ থেকে ১৭৫ সেন্টিমিটার পর্যন্ত হয়। মাথা লম্বা ও চ্যাপ্টা এবং মুখের সামনের দিকে চৌকোনা আকৃতির। এদের দেহের রঙ পিঠের দিকে সবুজ। আবার হালকা সবুজ রঙের এবং কালচে ডোরাযুক্ত হয়। ঘাড় থেকে লেজের ডগা পর্যন্ত মেরুদণ্ড বরাবর কমলা রঙের এবং লাল দাগ দেখা যায়।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক ও গবেষক ড. মো. কামরুল হাসান বলেন, নাগ-নাগিনী বা কাল-নাগিনী নাম দিয়ে এ প্রকৃতির সাপকে ভুলভাবে উপস্থাপন করে এদের জীবন হুমকিতে ফেলা হয়েছে। এ সাপের বিষক্রিয়া নেই। কেউ বলতে পারবে না এ সাপের কারণে কারও মৃত্যু হয়েছে।



খেলাধুলার খবর »
খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


ভালো চাকরি বা কাজ পেতে যে আমল করবেন

ভালো-চাকরি-বা-কাজ-পেতে-যে-আমল-করবেন

মদিনা শরিফের সবচেয়ে প্রবীণ ইমাম ও খতিব শায়খ হুজাইফি অসুস্থ

মদিনা-শরিফের-সবচেয়ে-প্রবীণ-ইমাম-ও-খতিব-শায়খ-হুজাইফি-অসুস্থ

ঘুম না আসলে যে দোয়া পড়তে বলেছেন প্রিয় নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম

ঘুম-না-আসলে-যে-দোয়া-পড়তে-বলেছেন-প্রিয়-নবি-সাল্লাল্লাহু-আলাইহি-ওয়া-সাল্লাম ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


অবাক ঘটনা মেহেরপুরে, বিয়ে করতে কনে গেলেন বরের বাড়ি!

অবাক-ঘটনা-মেহেরপুরে-বিয়ে-করতে-কনে-গেলেন-বরের-বাড়ি-

চিনে নিন এই ব্যক্তিকে, যিনি ১০০ স্ত্রীর স্বামী ও ৫০০ সন্তানের বাবা!

চিনে-নিন-এই-ব্যক্তিকে-যিনি-১০০-স্ত্রীর-স্বামী-ও-৫০০-সন্তানের-বাবা-

আপন মা নারাজ, পুত্রবধূকে বাঁচাতে নিজের কিডনি দিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন শাশুড়ি

আপন-মা-নারাজ-পুত্রবধূকে-বাঁচাতে-নিজের-কিডনি-দিয়ে-দৃষ্টান্ত-স্থাপন-করলেন-শাশুড়ি এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


বড় চমক দিয়ে আফগানদের বিপক্ষে ফাইনাল ম্যাচের স্কোয়াড ঘোষণা করল বাংলাদেশ

ঘুম না আসলে যে দোয়া পড়তে বলেছেন প্রিয় নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম

ফাইনাল ম্যাচে শান্তর বদলে মাঠে নামবে তামিম ইকবাল!

চট্টগ্রাম অধ্যায়ে পাঁচটি পরিবর্তন, ফাইনালে দল ঘোষণা করলো বিসিবি

পাঠকই লেখক


শুনতে অবাক লাগলেও এটাই সত্যি যে, এই গ্রামের সবাই দৃষ্টিহীন! কারণ...

শুনতে-অবাক-লাগলেও-এটাই-সত্যি-যে-এই-গ্রামের-সবাই-দৃষ্টিহীন--কারণ

ছাগল চুরির ৪১ বছর পর ধরা পড়লো চোর!

ছাগল-চুরির-৪১-বছর-পর-ধরা-পড়লো-চোর-

মহাকাশে সিমেন্ট গুলছে নাসার বিজ্ঞানিরা, চাঁদে বানানো হবে বাড়ি

মহাকাশে-সিমেন্ট-গুলছে-নাসার-বিজ্ঞানিরা-চাঁদে-বানানো-হবে-বাড়ি পাঠকই সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ