সোমবার, ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:১৭:৫৮

হিন্দু বাড়িতে গরু জ'বাই, মালিককে ১০ হাজার টাকা জ'রিমানাসহ শ্রাদ্ধর শাস্তি

হিন্দু বাড়িতে গরু জ'বাই, মালিককে ১০ হাজার টাকা জ'রিমানাসহ শ্রাদ্ধর শাস্তি

দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলার খয়েরবাড়ী ইউনিয়নে হিন্দু বাড়িতে অসুস্থ্য গরু জ'বাই করে বিক্রি করায়া গ্রাম্য শালিশে গৃহকর্তাকে জরিমানাসহ শ্রাদ্ধর শাস্তি মিলেছে। এই খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে সাধারণ মানুষের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া শুরু হয়েছে।

১১ আগস্ট শনিবার বিকেলে ফুলবাড়ী উপজেলার ৫ নং খয়েরবাড়ী ইউনিয়নের অম্রবাড়ী গ্রামের বাদল চন্দ্র সরকারের বাড়িতে এই ঘট'না ঘ'টেছে। এ নিয়ে ওই দিন রাতেই এলাকায় শালিশ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। শালিশে গরুর মালিককে ১০হাজার টাকা জ'রিমানা ও শ্রা'দ্ধ করার জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

শালিশে উপস্থিত থাকা হিন্দু বৌদ্ধ খৃষ্টান ঐক্য পরিষদের সদস্য সাবেক অধ্যাপক অনিল চন্দ্র সরকার জানান, গত শনিবার বিকেলে অম্রবাড়ী গ্রামের জতিন চন্দ্র সরকারের ছেলে বাদল চন্দ্র সরকারের একটি এঁড়ে গরু বাড়ির সকলের অজান্তে ইউরিয়া সার খেয়ে ফেলে। এতে গরুটি অসুস্থ্য হয়ে পড়ে। এ সময় পশু চিকিৎমক এনতাজ আলীকে ডেকে নিয়ে আসা হয়। তিনি জানান গরুটি ইউরিয়া সার খাওয়ার কারণে স্ট্রো'ক করেছে। গরুটি বাঁ'চানো যাবেনা। এ কথা শুনে গ্রাম্য দালালের কথা শুনে বাদল চন্দ্র সরকার ভোলা ও মশিয়ার রহমান নামে দুজন কসাইকে ডেকে নিয়ে এসে ৮ হাজার টাকায় অসুস্থ্য গরুটিকে বিক্রি করে দেয়। এ সময় কসাইরা গরুটি বাদল চন্দ্র সরকারের বাড়িতেই জ'বাই করে দেয়। এরই মধ্যে হিন্দু বাড়িতে গরু জ'বাইয়ের খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে তাদের সম্প্রদায়ের মধ্যে উ'ত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। পরে কসাইরা জ'বাই করা গরুটি ভ্যানযোগে পাশ্ববর্তী উপজেলা পার্বতীপুরের ভবানীপুর বাজারে নিয়ে গিয়ে মাংস বিক্রি করে ফেলে।

অনিল চন্দ্র সরকার আরো জানান, হিন্দু বাড়িতে গরু জ'বাই করা নিয়ে রাতে গ্রাম্য শালিশ বসে। শালিশে হিন্দু ধর্মের শাস্ত্র মতে গরুর মালিক বাদল চন্দ্র সরকারকে অসুস্থ্য গরু বিক্রি এবং তার বাড়িতে জ'বাইয়ের অপরা'ধে ১০ হাজার টাকা জ'রিমানা করা হয়েছে। যা তিনি পাশ্ববর্তী মন্দিরে দান করে দিবেন। একই সঙ্গে তিনি সারা গ্রাম ঘুরে বাড়ি বাড়ি ভি'ক্ষা করে যা পাবেন তা দিয়ে শ্রাদ্ধ করবেন। এটা করলে ধর্মীও শাস্ত্র অনুযায়ী বাদল চন্দ্র সরকারের পাপ মোচন হবে বলে তিনি জানান।

এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে বাদল চন্দ্র সরকার বলেন, তিনি তার অপরাধ মেনে নিয়েছেন এবং ১০ হাজার টাকা মন্দিরে দান করবেন ও গ্রাম ঘুরে বাড়ি বাড়ি ভিক্ষা করে গরুর জন্য শ্রাদ্ধ করবেন।

এ ব্যাপারে ৫ নং খয়েরবাড়ী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবু তাহের মন্ডল বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, যেহেতু তাদের মধ্যে গরু জ'বাই করা নি'ষেধ আছে। সেহেতু তিনি এটা অপরা'ধ করেছেন। তাই স্থানীয়ভাবে বসে শালিশ হয়েছে। শালিশে তার ১০ হাজার টাকা জরি'মা'না ও শ্রাদ্ধ করার জন্য বলা হয়েছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ফুলবাড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার রিয়াজ উদ্দিন, বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান ঘট'নাটি স্থানীয়রা বসে নিজেরাই সমাধান করেছেন।

এমটিনিউজ২৪.কম এর খবর পেতে গুগল নিউজ (Google News) এ ডান দিকের স্টার বাটনে ক্লিক করে গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি ফলো করুন! Follow করুন এমটিনিউজ২৪ গুগল নিউজ