শনিবার, ০৭ মে, ২০২২, ০৫:৪৫:৫৬

এবার যে প্রশ্নের মুখে মুস্তাফিজ! কী সিদ্ধান্ত নিবেন এখন?

এবার যে প্রশ্নের মুখে মুস্তাফিজ! কী সিদ্ধান্ত নিবেন এখন?

স্পোর্টস ডেস্ক: কাটার মাষ্টার মুস্তাফিজুর রহমান বাংলাদেশের একজন অনবদ্য বাঁহাতি পেসার। দেশের গণ্ডি পেরিয়ে তাঁর দক্ষতার নজির এখন ক্রিকেট দুনিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে। এদিকে ২০২১ সালে বাংলাদেশ দলের বাঁহাতি পেসার মুস্তাফিজুর রহমান ইঙ্গিত দেন টেস্ট ক্রিকেট খেলতে চান না তিনি। 

যুক্তি হিসেবে তুলে ধরেন চলমান করোনাভাইরাস ইস্যুকে। তাঁর ভাষ্য ছিল, করোনাভাইরাসের কারণে কোয়ারেন্টাইন বাধ্যতামূলক হওয়ায় পাঁচ দিনের ফরম্যাট থেকে নিজেকে গুটিয়ে নিতে চান। 

এরপর দেশের জার্সিতে আর কোনো টেস্ট খেলেননি মুস্তাফিজ। দীর্ঘদিন পর তার সেই অজুহাত আমলে নিতে নারাজ বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড, টিম ম্যানেজমেন্ট।

বাংলাদেশ দলের আসন্ন শ্রীলঙ্কা সিরিজ হবে জৈব সুরক্ষা বলয়ের বাইরে। অথচ একই সময় ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ খেলবেন মুস্তাফিজ, সেটি সুরক্ষা গণ্ডির মধ্যে থেকেই। 

যেখানে সাকুল্য ২০ দিনে শেষ হবে লঙ্কা সিরিজ, সেখানে আইপিএলে বন্দি থাকতে হচ্ছে দুই মাসের অধিক সময়। তাহলে কেন জৈব সুরক্ষা বলয়ের অজুহাত মুস্তাফিজের? আজ (শনিবার) মিরপুরে সংবাদমাধ্যমের সামনে এমন প্রশ্ন তুললেন বোর্ড পরিচালক এবং টিম ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ সুজন। 

সুজন বলছিলেন, ‘একসময় শুনেছিলাম বায়োবাবলের কারণে খেলতে চায় না। তবে আমার মনে হয় না এগুলো কোনো অজুহাত হতে পারে। তাসকিন, শরিফুলরা খেলতে পারলে, তারও খেলা উচিৎ।’

আইপিএল খেললে বাড়তি টাকা পাওয়া যায় সত্যি। অঙ্কটাও বেশ মোটা। তবে আইপিএলের সেই টাকা কি দেশের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করার সম্মানের চেয়ে বড়?

মুস্তাফিজকে প্রশ্ন ছুড়ে সুজন বলছিলেন, ‘সাদা বলে হয়ত টাকার ব্যাপারটা বেশি। আইপিএল খেললে হয়ত ২-৪ কোটি টাকা পাবে। ক্রিকেট কি টাকার চেয়ে বড় নয়? দেশ কি টাকার চেয়ে বড় নয়? আমরা তো টাকার জন্য খেলিনি। 

একজন ক্রিকেটারকে এখন মৃত্যুর সময় বিসিবির সহায়তা লাগে। ওদের (বর্তমান ক্রিকেটারদের) তো লাগবে না। ওরা বরং অন্যদের সহায়তা করতে পারে। দেশের জন্য কেন আমি খেলব না?’

তবে একাধিক পেসার চোটের সঙ্গে লড়লেও আইপিএল থেকে এখন মুস্তাফিজকে ফিরিয়ে এনে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট খেলানোর ভাবনা নেই বিসিবির। সুজন ইঙ্গিত দিলেন, আসন্ন ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের টেস্ট স্কোয়াডে বিবেচনা করা হবে এই বাঁহাতি পেসারকে।

সুজনের ব্যাখ্যা, ‘যেহেতু ওকে আমরা ছুটি দিয়ে দিয়েছি, আইপিএল খেলছে, এখন ওকে ডিস্টার্ব করতে চাই না। আইপিএল খেলুক। 

আইপিএলে আমাদের একজন প্রতিনিধিত্ব করছে এটা আমাদের জন্য বড় একটা ব্যাপার। আমরা চাই ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজে একটা টেস্ট হলেও খেলুক।’

সঙ্গে যোগ করেন সুজন, ‘আমাদের ছেলেরা স্টার্ক, হেইজেলউডের মতো না। আমাদের এরা ইঞ্জুরিপ্রবণ। সুতরাং আমরা চাই সবাই বিরতি নিয়ে নিয়ে খেলুক। 

তাহলে লম্বা সময় ধরে ওদের সার্ভিস পাব। এমনিই শক্তি কম। তার মধ্যে যদি সেরাদের ছাড়া খেলি!’ এবার দেখার পালা কী সিদ্ধান্ত নেন এই কাটার মাষ্টার।

এমটিনিউজ২৪.কম এর খবর পেতে Follow করুন এমটিনিউজ২৪ গুগল নিউজ, এমটিনিউজ২৪ টুইটার , এমটিনিউজ২৪ ফেসবুক এবং সাবস্ক্রাইব করুন এমটিনিউজ২৪ ইউটিউব চ্যানেলে