রবিবার, ০৮ মে, ২০২২, ১১:৪১:১১

যেন একটা যাদু দেখালেন ধোনি!

যেন একটা যাদু দেখালেন ধোনি!

স্পোর্টস ডেস্ক: এমনটি একমাত্র ধোনিকে দিয়েই সম্ভব! হয়ত এই জন্যই তাঁকে সবচেয়ে সফল অধিনায়ক বলা হয়! এই IPL-এর সেমিফাইনালে ধোনি পঞ্জাব কিংসের বিরুদ্ধে শেষ ওভারে ধামাকা দেখিয়েছিলেন। 

যেন একটা যাদু দেখালেন ধোনি! প্রায় হারতে বসা ম্যাচকে জিতিয়েছিলেন তিনি। আসলে তাঁর দলে থাকা মানে ম্যানেজমেন্ট নিশ্চিত হতে পারে যে দল জিতছেই। সেই ম্য়াচে শেষ ওভারে ইরফান পাঠানের বিরুদ্ধে ধোনি ১৬ রান করেন ও দলকে জেতান।

সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে গ্রুপ স্তরের একটি ম্যাচ ছিল সেটি। চেন্নাই সুপার কিংসের জয়ের জন্য দরকার ছিল ১৫ রান। শেষ ওভারে ধোনি নিজের জাদু দেখান। পুরো ম্যাচে ধোনি ৩৭ বলে ৬৭ রান করে অপরাজিত থাকেন। তিনিই ছিলেন ম্যাচের সর্বোচ্চ স্কোরার। ১৯.৪ ওভারেই জয়ের জন্য রান তুলে নেয় CSK।

মুম্বই ইন্ডিয়ান্স বনাম চেন্নাই সুপার কিংসের ম্যাচ মানে তা আলাদা উত্তেজনার সৃষ্টি করে। ২০১ সালে গ্রুপ স্তরে দুই দলের মধ্যেকার ম্যাচ ছিল। শেষ ওভারে চেন্নাইয়ের জয়ের জন্য দরকার ছিল ১১ রান। কিন্তু ধোনি শেষ ওভারে মাত্র ৩ বলে ১১ রান তুলে দলকে জিতিয়ে দেন। বিপক্ষের বোলারের বুঝে ওঠার আগেই ধোনি ম্যাচ শেষ করে চ্যাম্পিয়ন হাসি হেসে মাঠে ছাড়েন।

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর বনাম চেন্নাই সুপার কিংসের মধ্যে ম্যাচকে দক্ষিণ ভারতীয় ডার্বি বলা হয়। তারউপর এই ম্যাচটা হয় বিরাট কোহলি বনাম ধোনির। ধোনির উত্তরসূরি কোহলি। ফলে এটির আলাদা গুরুত্ব থাকে। ২০১৮ সালে গ্রুপস্তরের ম্যাচে RCB-র বিরুদ্ধে শেষ ওভারে ছয় মেরে ম্যাচ জিতিয়েছিলেন। ইতিহাস দেখলে ব্যাঙ্গালোরের উপর বরাবরই চাপ বজায় রাখে চেন্নাই।

ক'রোনা'র জন্য এই মরশুমটা দুভাগে করতে হয়েছিল। প্রথম পর্ব হয়েছিল ভারতে। তারপর দ্বিতীয় পর্ব হয় সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে। এই মরশুমের শুরু থেকেই CSK দাপট দেখিয়েছিল। এই মরশুমে রাজস্থান রয়্যালসের বিরুদ্ধে একটি ম্যাচে শেষ ওভারে জয়ের জন্য ৩ রান বাকি ছিল। ধোনি খুব সহজেই যা করে দেন।

এমটিনিউজ২৪.কম এর খবর পেতে গুগল নিউজ (Google News) এ ডান দিকের স্টার বাটনে ক্লিক করে গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি ফলো করুন! Follow করুন এমটিনিউজ২৪ গুগল নিউজ