মঙ্গলবার, ০৬ জুলাই, ২০২১, ০৫:৪৪:৫০

'ডাক্তারি পরীক্ষায় প্রমাণিত হলে বউ হিসেবে গ্রহণ করব'

'ডাক্তারি পরীক্ষায় প্রমাণিত হলে বউ হিসেবে গ্রহণ করব'

নেত্রকোনার মদনে ধ'র্ষ'ণে এক প্রতিব'ন্ধী কিশোরী (১৬) অ'ন্তঃস'ত্ত্বার ঘটনায় মাম'লার প্রধান আসামি আছির উদ্দিনকে গ্রে'প্তার করেছে পুলিশ। আজ মঙ্গলবার উপজেলার মাঘান ইউনিয়নের মাঘান পশ্চিম পাড়া থেকে তাকে গ্রে'প্তার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। আছির উদ্দিন নেত্রকোনার খালিয়াজুরী উপজেলার বোয়ালী গ্রামের বাবুল মিয়ার ছেলে।  

জানা যায়, আছির উদ্দিন দীর্ঘদিন ধ'রে মামাবাড়ি থাকেন। এ সময় প্রতিবেশী ওই প্রতিব'ন্ধী কিশোরীকে বিয়ের প্রলো'ভন দিয়ে একাধি'কবার ধ'র্ষ'ণ করলে ওই কিশোরী অ'ন্তঃস'ত্ত্বা হয়ে পড়ে। এ নিয়ে একাধিকাবার গ্রাম্য সালি'স হলেও বিষয়টি মীমাং'সা হয়নি।

গত ২৪ জুন রাতে ওই কিশোরীর মা আছির উদ্দিনসহ তিনজনকে আসা'মি করে নারী ও শিশু নি'র্যা'তন দ'মন আইনে মদন থানায় একটি মাম'লা দা'য়ের করেন। আজ মঙ্গলবার আসামি আছির উদ্দিনকে গ্রেপ্তার করে নেত্রকোনা আদালতে পাঠানো হয়েছে। 

অভিযুক্ত আছির উদ্দিনের মা বলেন, 'আমার ছেলে আছির উদ্দিন যদি অপ'কর্ম করে তাহলে তাদের ডাক্তারি পরীক্ষা করা হবে। ডাক্তারি রিপো'র্টে প্রমাণিত হলে মেয়েটিকে আমার ছেলের বউ হিসাবে গ্রহণ করব।'

মদন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফেরদৌস আলম বলেন, মাম'লার প্রেক্ষিতে আছির উদ্দিনকে গ্রে'প্তার করা হয়েছে। মঙ্গলবার তাকে নেত্রকোনা আদালতে পাঠানো হয়েছে।

এমটিনিউজ২৪.কম এর খবর পেতে গুগল নিউজ (Google News) এ ডান দিকের স্টার বাটনে ক্লিক করে গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি ফলো করুন! Follow করুন এমটিনিউজ২৪ গুগল নিউজ